শিরোনাম

সিভিল সার্ভিস দিবসের আলোচনা সভায় অতিরিক্ত সচিব আব্দুল বারিক

পরিকল্পনা করে কাজ করলে দ্রুত সফলতা আসবে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি | সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯ | পড়া হয়েছে 221 বার

পরিকল্পনা করে কাজ করলে দ্রুত সফলতা আসবে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। গত রোববার সকাল ১০টায় স্থানীয় বঙ্গবন্ধু স্কয়ার থেকে বর্ণাঢ্য এক র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে গিয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

“দক্ষ সিভিল সার্ভিসই জন প্রশাসনের ভিত্তি” “সার্ভিসের জন্য জনগন নয়, বরং জনগনের জন্যই সার্ভিস” “জনগনের কাছে সেবার হাত” শ্লোগানকে সামনে রেখে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল বারিক।


জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদোন্নতিপ্রাপ্ত) আলমগীর হোসেন, সিভিল সার্জন মোঃ শাহআলম, পৌর মেয়র নায়ার কবির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ হানিফ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক এ এস এম শফিকুল্লাহ ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্দুল বারিক বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারসহ সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের প্রশংসা করে বলেন, ডিজিটাল গ্রাম, এক সেবা বাতায়নে চাকুরীজীবিদের জবাবদিহিতা ও কর্মের মূল্যায়ন, পেপারলেস অফিস, ঘরে বসে সকল সেবাসহ বিভিন্নরকম কার্যক্রম করতে হবে। এগুলো সরকারি সিভিল সার্ভিসের লোকজনকে বাস্তবায়ন করতে হবে। এসব বাস্তবায়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। পরিকল্পনা করে কাজ করলে দ্রুত সফলতা আসবে। তিনি আরো বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেনের আসন সংখ্যা কম রয়েছে। আমার পর্যবেক্ষন প্রতিবেদনে বিষয়টি উল্লেখ করে আসনবৃদ্ধির জন্য অনুরোধ করব। তিনি বলেন, জনগোষ্ঠীকে কাজে লাগাতে না পারলে উন্নয়ন আসবে না। সরকার আমাদের অনেক দিয়েছে। সুযোগ সুবিধা বাড়িয়েছে। এখন জনগণের সেবার জন্য কাজ করতে হবে। তাই দক্ষ মানুষ তৈরি করতে সকল শ্রেণির কর্মকর্তাদের কাজ করতে অনুরোধ জানান তিনি।

আলোচনা সভায় জেলার সকল সরকারি দপ্তরের প্রধানগণ, সকল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগনসহ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ফিরোজা পারভিন।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন বলেন, জনগণের করের টাকায় সরকারি কর্মকর্তারা বেতন নিয়ে থাকেন। গত বারের তুলনায় এবার এবছর সরকার চারগুন বাজেট ঘোষণা করেছে। তার মানে আমাদের চারগুন বেশি সেবা দিতে হবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১