শিরোনাম

নাসিরনগরে ‘রহস্যজনক’ আগুন: তথ্য দিলে এক লাখ টাকা পুরস্কার

প্রতিনিধি: | মঙ্গলবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৬ | পড়া হয়েছে 510 বার

নাসিরনগরে ‘রহস্যজনক’ আগুন: তথ্য দিলে এক লাখ টাকা পুরস্কার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলার পর ‘রহস্যজনক’ আগুন লাগানোর ঘটনায় তথ্য দিলে এক লাখ টাকা পুরষ্কার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে জেলা পুলিশ। ব্রাহ্মণবাড়িযার পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান রাইজিংবিডিকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।  গত সোমবার বিকেল থেকে নাসিরনগরে মাইকিং করে এ খবর প্রচার করা হচ্ছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, ৩০ অক্টোবর হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় ১৫ টি মন্দির এবং শতাধিক বাড়িঘরে হামলা-ভাংচুরের শিকার হয়। কিন্তু এঘটনার পর ৪ নভেম্বর ভোরে চার বাড়ির ৫টি ঘরে আগুন লাগে। ঘরগুলোর মধ্যে নমশুদ্র পাড়ায় ফুল কিশোর সরকারের গোয়াল ঘর, মনাল কান্তি সরকারের রান্নাঘর ও একটি পরিত্যক্ত ঘর, ঠাকুর পাড়ায় বিশ্বদেব চক্রবর্তীর পরিত্যক্ত ঘর এবং পশ্চিম পাড়ায় সাগর দাসের বাড়ির দূর্গা মন্দিরে অগ্নিসংযোগ করা হয়। রাইজিংবিডির এ প্রতিবেদক সরেজমিনে গেলে প্রতিটি বাড়ির লোকজন জানিয়েছেন, ভোর তিনটা থেকে সাড়ে তিনটার মধ্যে এসব বঘরে আগুন লাগানো হয়। এ সময় তারা ঘুমিয়ে ছিলেন। পরে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে আগুন নেভান। ৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অঞ্জন দেবের বাড়ির পাঠখড়ি রাখার ঘরে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। এতেও তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। এ অবস্থায় রবিবার ভোরে পুলিশ ও গ্রামবাসীর পাহাড়ার মধ্যেই পশ্চিম পাড়ার ছোট্ট দাসের একটি জাল রাখার ঘরে ‘রহস্যজনক’ আগুন দেযার ঘটনা ঘটে। এতে তার ৫টি জাল পুড়ে যায়। স্থানীয়দের ধারণা ঘটনা উসকে দিতে এবং আতঙ্ক সষ্টি করতেই এসব আগুন লাগানোর ঘটনা ঘটছে। এ অবস্থায় আজ জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পুরস্কারের ঘোষনা আসলো।
নাসিরনগর থানার ওসি আবু জাফর বলেন, তিন দিনের আগুন লাগানোর ধরন এক। ধারণা করছি আতঙ্ক তৈরির জন্যই একটি গোষ্টি এসব ঘটনা ঘটাচ্ছে। এ অবস্থায় ঘটনার হুতাদের খোঁজে বের করতেই পুলিশ সুপার এ পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছেন।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০