শিরোনাম

অবশেষে সাময়িক বরখাস্ত হলেন

নাসিরনগরের সেই ভূমি কর্মকর্তা বজলুল হক

নাসিরনগর প্রতিনিধি | শনিবার, ১৫ জুন ২০১৯ | পড়া হয়েছে 276 বার

নাসিরনগরের সেই ভূমি কর্মকর্তা বজলুল হক

ঘুষ গ্রহণসহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা বজলুল হককে প্রত্যাহার করার পর এবার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার তাকে চাকুরী থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এর আগে তাকে কারণ দর্শানোরও নোটিশ দেওয়া হয়েছিল।


গত ১৩ জুন বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক হায়াত উদ দৌলা খান স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়, “ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাধীন নাসিরনগর উপজেলার সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা বজলুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও শৃংখলা ভঙ্গের অভিযোগের ভিত্তিতে এ কার্যালয়ের ১২/০৬/২০১৯ তারিখের ১০৩২ নং স্বারকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হলে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা জবাব দাখিল করেন। জবাবটি সন্তোষজন ও যুক্তিগ্রাহ্য বিবেচিত না হওয়ায় এবং অভিযোগটি গুরুতর বিবেচনায় এতদ্বারা অদ্য ১৩/০৬/২০১৯ তারিখ বজলুল হক, ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা, নাসিরনগর সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিস, নাসিরনগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে সরকারি কর্মচারী (শৃংখলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর ৩(ঘ)(ই) উপধারার বিধান মোতাবেক তাকে চাকুরী থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো। সাময়িক বরখাস্তকালীন তিনি বিধি মোতাবেক যাবতীয় সুবিধাদি প্রাপ্য হবেন”।

এ ব্যাপারে গত শুক্রবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খাঁনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, নাসিরনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা বজলুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে থাকা অভিযোগ তদন্ত করে প্রমানিত হলে তার বিরুদ্ধে চুড়ান্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার দুপুরে নাসিরনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা বজলুল হকের দুর্নীতির বিরুদ্ধে ও তার শাস্তির দাবিতে নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে স্মারকলিপি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন ভুক্তভোগীরা। পরে ওইদিনই বজলুল হককে প্রত্যাহার করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১