শিরোনাম

নারীরা সকল ক্ষেত্রেই অনেক এগিয়ে : মোকতাদির চৌধুরী এম.পি

স্টাফ রিপোর্টার : | বৃহস্পতিবার, ০৮ মার্চ ২০১৮ | পড়া হয়েছে 145 বার

নারীরা সকল ক্ষেত্রেই অনেক এগিয়ে : মোকতাদির চৌধুরী এম.পি

পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয় বিষয়ক সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এম.পি বলেছেন, বর্তমান সরকার নারী বান্ধব সরকার। আজ বাংলাদেশের নারীরা সকল ক্ষেত্রেই অনেক এগিয়ে গেছে। যার ফলাফল হিসেবে সরকারি চাকরি, সামাজিক, সাংস্কৃতিক রাজনীতিসহ সকল পেশায় নারীরা এগিরয়ে রয়েছে। নারীর ক্ষমতায়নে শক্ত ভিত্তি পাবে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে। এ জন্য নারীর অধিকার আদায়ে একই দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি আজ বৃহস্পতিবার (০৮.০৩.২০১৮) সকালে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে সদর উপজেলা প্রাঙ্গণে নারী উন্নয়ন ফোরাম, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, জাতীয় মহিলা সংস্থার আয়োজনে নারী মেলায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মো. সামসুল হকের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মোকতাদির চৌধুরী এম.পি আরো বলেন, নারীরা যেন প্রকৃত ভাবে সকল ক্ষেত্রে মর্যাদা পায় সে লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার কাজ করছে।


মোকতাদির চৌধুরী এম.পি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিভিন্ন পদক্ষেপের কারনে বাংলাদেশের নারীরা আজ পিছিয়ে নেই। তারা সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরির পাশাপাশি কুটির শিল্পে কাজ করে দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখছে। এছাড়া নারীরা এখন রাজনীতিতেও সক্রিয় হয়ে উঠেছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখতে তা বাস্তবায়ন করতে নারী পুরুষকে সমান্তরালে চলতে হবে তাহলেই সেই সোনার বাংলার স্বপ্ন পূরণ হবে। তিনি বলেন, নারীদের মানুষ হিসেবে গণ্য করতে হবে। শিক্ষায় নারীদের অধিকার আছে কিন্তু একটি মহল নারীদের শিক্ষিত করতে চাই না। তারা সমাজের উন্নতি চান না বরং তারা নারীদের শিক্ষা ক্ষেত্রে বিভিন্ন বাঁধা সৃষ্টি করছে তাদের বিরুদ্ধে আমাদেরকে সোচ্চার থাকতে হবে। জনসংখ্যার এক বৃহতাংশকে বঞ্চিত রেখে সামগ্রিক উন্নয়ন সম্ভব নয়।

নারী কর্তৃক সম্পত্তির উত্তরাধিকার ইসলাম স্বীকৃত। ধর্মকে নারী পুরুষ সমতা প্রতিষ্ঠার বিপরীতে দাঁড় করানোর ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধেও সকলকে সোচ্চার থাকার আহবান জানান।

আজ নারীরা দেশের প্রশাসন থেকে বিচারব্যবস্থায়, শিক্ষা থেকে প্রতিরক্ষায় মেয়েদের ভূমিকার কথা উল্লেখ করে বলেন মেয়েদের হাতে কাজ দিলে তারা তা অত্যন্ত সুনিপুর্ণ ভাবে করেন কারণ, মেয়েরা সব পারেন।

তিনি নারী দিবসের চেতনা ধারণ করে নারীদের সামনের দিকে অগ্রসর হওয়ার আহবান জানান। অনুষ্ঠিত নারী মেলার উদ্বোধন করেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (অব:) মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জান্নাতুল ফেরদৌস, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মহসিন মিয়া, নারী ফোরামের সভাপতি ও সদর উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডঃ তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ফরিদা নাজমীন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সালমা বেগম।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বাচিক শিল্পী মনির হোসেন ও রোকেয়া দস্তগীর। পরে অতিথিবৃন্দ মেলায় স্টল পরিদর্শন করেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১