শিরোনাম

দিশেহারা গ্রাহক!

নাসিরনগর প্রতিনিধি : | রবিবার, ০৫ নভেম্বর ২০১৭ | পড়া হয়েছে 107 বার

দিশেহারা গ্রাহক!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরে বিদ্যুৎ বিভাগের অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে ব্যাহত হচ্ছে গ্রাহক সেবা। এ যেন দেখার কেউ নেই। এতে দূর্ভোগের শেষ নেই হাজার হাজার গ্রাহকের। অতিরিক্ত বিলের চাপে দিশেহারা ভোক্তভোগি গ্রাহকরা। এসব বিষয়ের প্রতিকার চেয়ে অফিসে গেলেও ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে সংশ্লিষ্টদের দেখা মিললেও হচ্ছে না সমাধান।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় এ বিতরণ বিভাগের আবাসিক ও বাণিজ্যিক গ্রাহক মিলিয়ে রয়েছে প্রায় ৩১ হাজার। এছাড়া নতুন সংযোগের ক্ষেত্রে তো আরো করুণ অবস্থা। সরকার নির্ধারিত ফি এর চেয়ে নেয়া হচ্ছে কয়েকগুণ বেশী টাকা। এর প্রধান কারণ হচ্ছে দায়িত্বপ্রাপ্তদের দীর্ঘদিন এক জায়গায় চাকরীরত রাখা। তারা অফিসের বাইরে কিছু লোক দিয়ে তৈরী করেছে একটি দালাল চক্র।


এ চক্রের মাধ্যমেই বেশীরভাগ সময় সাধারণ গ্রাহকদের কাছ থেকে নতুন সংযোগের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। তারা থেকে যাচ্ছে ধরা ছোঁয়ার বাইরে। এছাড়া মিটার রিডিং না দেখে আনুমানিক বিল গ্রাহকদের উপর চাপিয়ে দেওয়া যেন নিয়মে পরিণত হয়েছে।

অতিরিক্ত বিলের চাপে দিশেহারা অসহায় গ্রাহকরা বিষয়টি যেন দেখার কেউ নেই। মিটার রিডাররা প্রতি মাসে মিটার দেখে বিল করার নিয়ম থাকলেও মিটার না দেখে বিল প্রদান করায় অতিরিক্ত অর্থ গুণতে হচ্ছে গ্রাহকদের।

বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ভোক্তভোগীদের সাথে কথা বললে জানা যায়, মাসের পর মাস বিদ্যুৎ বিলের এ অভিযোগ নিয়ে অফিসে আসি। বেশীরভাগ সময়ই সংশ্লিষ্টদের দেখে মেলে না। কথা হয় এ রকম কয়েকজন গ্রাহকদের সাথে।

নাসিরনগর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সহকারী জেনারেল ম্যানিজার মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, শীত চলে আসছে। গ্রাহকদের অতিরিক্ত বিলের ভোগান্তি আস্তে আস্তে ঠিক হয়ে যাবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০