শিরোনাম

দিনভর উৎকণ্ঠা-উত্তেজনা : সিন্দুক রহস্যের অবসান এসিআই’র কাগজে

স্টাফ রিপোর্টার : | রবিবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 164 বার

দিনভর উৎকণ্ঠা-উত্তেজনা : সিন্দুক রহস্যের অবসান এসিআই’র কাগজে

দিনভর উৎকণ্ঠা-উত্তেজনা! কী আছে চার মন ওজনের বিশাল সিন্দুকে? প্রথমে স্থানীয়রা এটি সড়কের পাশে দেখতে পান। কিন্তু, ভয়ে হাত দেননি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় খবর দিলে আজ ১৪ অক্টোবর রবিবার সকালে পুলিশ এসে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর এলাকার কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের পাশ থেকে সিন্দুকটি থানায় নিয়ে যায়।


এরপরই বৃহৎ সিন্দুক ঘিরে জল্পনা-কল্পনা ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ থেকে, জনতা সবাই ভেবেছিলেন এতে স্বর্ণালংকার বা মূল্যবান কিছু পাওয়া যাবে। থানায় অনেকেই ভিড়ও করেন।

দুপুরে থানায় সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে সিন্দুকটি খোলা হয়। এরপর সব রহস্যের অবসান হয়। এতে পাওয়া যায় একটি বহুজাতিক কোম্পানির কয়েক পৃষ্ঠা কাগজ।

সুহিলপুরের স্থানীয়রা জানান, সিন্দুকটি মহাসড়কের পাশে পড়েছিল। ভয়ে কেউ হাত দেয়নি। পরে পুলিশে খবর দেয়া হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল হক জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে সিন্দুকটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। সিন্দুকটি ওজন প্রায় ৪ মন হবে।

তিনি জানান, সিন্দুকের উপরে নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানের স্টিকার লাগানো। দৈর্ঘ্য-প্রস্থ ১৭ ইঞ্চি করে। সিন্দুকটি সামনের অংশ ভাঙা ছিল।

পরে দুপুরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে সিন্দুকটি খোলা হয়। তল্লাশি করে ভেতরে এসিআই কোম্পানির হবিগঞ্জ অঞ্চলের কয়েকটি কাগজ পাওয়া যায়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জান্নাতুল ফেরদৌস জানান, সিন্দুকটি খোলার পর এর ভেতরে একটি কোম্পানির সিলযুক্ত কয়েকটি কাগজ পাওয়া যায়। জব্দ তালিকা করে সদর থানায় সিন্দুক ও কাগজগুলো জমা রাখা হয়েছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১