শিরোনাম

ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মাদক প্রতিরোধ শীর্ষক ছাত্র সমাবেশ অনুষ্ঠিত

প্রেস রিলিজ | শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 397 বার

ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মাদক প্রতিরোধ শীর্ষক ছাত্র সমাবেশ অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার সংগ্রাম গৌরব ঐতিহ্য ও সাফল্যের ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি-১৯ ) সকাল ১০ ঘটিকায় জেলা সভাপতি ছাত্রনেতা মুহাম্মাদ ইকবাল হোসাইন শাহ বাবুলের সভাপতিত্বে ব্রাহ্মণবাড়িয়া অবকাস্থ ইসলামিক সেন্টার মিলনায়তনে মাদক প্রতিরোধ শীর্ষক ছাত্র সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিল বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সহ-দপ্তর সচিব জননেতা আলহাজ্ব মুহাম্মাদ আব্দুল হাকিম। প্রধান অতিথির বক্তিতায় তিনি বলেন মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত সমাজ গড়ার প্রত্যয়ে ৩৯ বছর যাবৎ ছাত্রসেনার সেনানীরা দেশের প্রতিটি প্রান্তরে কাজ করে যাচ্ছে।ছাত্রসেনার সেনানীদের তথ্য মতে মাদকের সাথে দেশের
স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালের ছাত্র-ছাত্রীরা জড়িত।


মাদক নিয়ন্ত্রণে সরকার কঠোর আইন করা সত্ত্বেও শিক্ষার্থীদের কাছে নৈতিক ও আর্দশ শিক্ষা এবং মূল্যবোধ জাগ্রত করতে না পাড়ায় দিনদিন যেন এর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাচ্ছে। প্রশাসন বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করেও ছাত্রজনতা কে এ পথ থেকে ফিরাতে পারছেনা। শিক্ষার্থীরা মাদক সেবনের ফলে সমাজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন অপরাধ মূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছে।

অথচ ছাত্রসেনা ১৯৮০ সালের ২১ জানুয়ারিতে প্রতিষ্ঠা করার পর থেকে ছাত্রজনতাকে মাদক সহ সকল অনৈতিক কর্মকাণ্ডের বিপরীতে আর্দশিক ও নৈতিক মূল্যবোধে জাগ্রত করে যাচ্ছে। যার কারণে আজ ৩৯ বছর পর্যন্ত ছাত্রসেনার কোন স্তরের কোন সেনাকর্মী মাদকের সাথে জড়িয়ে পড়তে দেখা যায়নি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিল জেলা ইসলামী ফ্রন্টের অর্থ সম্পাদক মাও. সাইয়্যেদুজ্জামান জাবের, সরাইল উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক মাও. আতিকুর রহমান, ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় পরিষদের সহ সাধারণ সম্পাদক ছাত্রনেতা মুহাম্মদ জাবের হোসেন। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিল ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ছাত্রনেতা মুহাম্মদ দিদারুল ইসলাম কাদেরী, বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিল ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় দাওয়া বিষয়ক সম্পাদক ছাত্রনেতা মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ছাত্রসেনা সরাইল উপজেলার সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ বাহা উদ্দিন খান হাকিম, সরাইল উপজেলা যুবসেনার সভাপতি পীরজাদা হাফেজ শাহাদত হোসেন।

বিশেষ অতিথি গন বলেন মাদকাসক্তি এমন একটি দুর্বার নেশা, যাতে একবার অভ্যস্ত হয়ে পড়লে তা পরিত্যাগ করা অতিব দুরহ হয়ে পড়ে। মাদকাসক্তরা কিভাবে সে ধ্বংসের অন্ধকারাচ্ছন্ন পথে এগিয়ে চলে তা সে নিজে ও বুঝতে পারে না। মাদকে অভ্যস্ত ব্যক্তি শুধু নিজের ধ্বংসই টেনে আনে না, জাতীয় জীবনকেও এক ভয়াবহ পরিণামের দিকে ঢেলে দেয়। তারা আরও বলেন তরুন সমাজকে মাদকাসক্তি থেকে ফিরিয়ে আন্তে বর্তমানে আমাদের দেশে যদিও কিছু পদক্ষেপ রয়েছে কিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় যৎসামান্য। তরুণ সমাজকে নৈতিক মূল্যবোধের প্রতি সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে যাতে নেশাগ্রস্তদের সংখ্যা বৃদ্ধি না পায় সেজন্য পিতা-মাতা, শিক্ষক ও সমাজের গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে অধিকতর সচেতন হতে হবে। মাদকাসক্তদের কে মাদক থেকে ফিরিয়ে আন্তে প্রচার মাধ্যম গুলোতে মাদকাসক্তির ভয়াবহ পরিনাম সম্পর্কে ব্যাপকতর প্রচার চালাতে হবে।

জেলা ছাত্রসেনা’র সাধারন সম্পাদক জোবাইর আহাম্মদ রানার সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার গ্রন্থণা ও প্রকাশনা সম্পাদক উজ্জল হোসেন, জেলা তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাফেজ শফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলা ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ জাকির হোসেন জিকু, আখাউড়া উপজেলা ছাত্রসেনার সভাপতি সৈয়দ বাকি বিল্লাহ নূরী, যুবসেনা সরাইল উপজেলার অর্থ সম্পাদক মুহাম্মাদ জিয়া উদ্দিন আহমদ, ছাত্রসেনা সরাইল উপজেলার সহ-সাধারণ সম্পাদক হাফেজ আমিনুল ইসলাম, সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রিফাত, জেলা ছাত্রসেনার সদস্য মুহাম্মাদ ঈমান আলী, কসবা উপজেলার প্রচার সম্পাদক হাফেজ মুহাম্মাদ সুজন, বুধন্তি ইউনিয়ন ছাত্রসেনার সভাপতি ছাত্রনেতা কে এম গোলজার আহমেদ, মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম রাসেল, মুহাম্মাদ মতিউর রহমান, মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ সহ প্রমুখ।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১