শিরোনাম

চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সহায়ক ও কর্মচারীগনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধন

| বৃহস্পতিবার, ০১ নভেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 150 বার

চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সহায়ক ও কর্মচারীগনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ সফিউল আজম বলেছেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জজশীপ ও ম্যাজিস্ট্রেসী সারা বাংলাদেশের ন্যায়ে মডেল জজশীপ ও ম্যাজিস্ট্রেসী ছিল এবং বর্তমানেও আছে। তিনি বলেন বর্তমান চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সহায়ক কর্মচারীগনের প্রশিক্ষন কর্মশালা যে ব্যবস্থা করেছে তা বিচার বিভাগের জন্য সুন্দর একটি আয়োজন। তিনি আরো বলেন আমি ব্রাহ্মণবাড়িয়া চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। এখন জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। আমি চাই মডেল জজশীপ ও ম্যাজিস্ট্রেসী থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাসী ন্যায় বিচার আশা করতে পারবে।

গতকাল ৩১ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৩টায় চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সম্মেলন কক্ষে ৩ তিন দিনব্যাপী সহায়ক কর্মচারীগণের প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ পারভেজ এর সভাপতিত্বে তিনি আরো বলেন, কাজ করতে গিয়ে সকলেরই দায়িত্ববোধ থাকতে হবে। তিনি সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আমি চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট থাকাকালীন সময়ে ২৪ থেকে ২৫ হাজার মামলার জট ছিল কিন্তু কম সময়ের মধ্যে ১০ থেকে ১২ হাজার মামলা নিষ্পত্তি করে ছিলাম। সেটিও কর্মকর্তা কর্মচারীদের পাওয়া। অনুষ্ঠানে সভাপতি ও স্বাগত বক্তব্য বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ পারভেজ বলেছেন প্রশিক্ষণের জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে সকলে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করার জন্য সহযোগিতা করতে হবে। তিনি বলেন আমাদের ম্যাজিস্ট্রেটগণ যে বিষয়ে আলোচনা করবেন সেটি ভাল ভাবে লক্ষ্যে করতে হবে। আর সেটিকেও নিয়মনীতি অনুযায়ী কাজে লাগাতে হবে।


এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহম্মদ মোশাররফ হোসেন, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা আহ্মেদ, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আল আমিন, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা আক্তার, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ হোসাইন, মোঃ জাকী আল ফারাবী, তারান্নুম রাহাত।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০