শিরোনাম

চাপুইর গ্রামে স্ত্রীকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ, স্বামীসহ সবাই পলাতক

স্টাফ রিপোর্টার : | শনিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 361 বার

চাপুইর গ্রামে স্ত্রীকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ, স্বামীসহ সবাই পলাতক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নাজমা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখায় অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। গতকাল ৩০ নভেম্বর শুক্রবার সকালে সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের চাপুইর গ্রামে স্বামীর বাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত গৃহবধূ তিন সন্তানের জননী ও ঐ এলাকার মৃত মমিন মিয়ার ছেলে ফরহাদ মিয়ার স্ত্রী। নাজমা বেগম সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের বিরামপুর গ্রামের ধন মিয়ার মেয়ে। ঘটনার পর পালিয়ে গেছে নাজমার স্বামী ফরহাদ মিয়াসহ তার পরিবারের সদস্যরা ।

নাজমার ছোট ভাই বাদল মিয়া বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে আমার ভগ্নিপতি ফরহাদ ফোন দিয়ে আমার বাবাকে জানায় আপা (নাজমা) বাড়ি থেকে বের হয়ে গেছে। খবর পেয়ে আমরা রাতেই চাপুইর গ্রামে তাদের বাড়িতে যাই। গিয়ে বাড়িতে কাউকে পাইনি। আমার বোনের ঘরে ঢুকে দেখি, তার মরদেহ ঘরের তীরে রশি দিয়ে ঝোলানো। কিন্তু পা মাটিতে লাগানো। পরে পুলিশকে খবর দেই।


ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল হক জানান, খবর পেয়ে সকালে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নাজমার স্বামীর বাড়ির কাউকে পাওয়া যায়নি। তদন্ত শেষে রহস্য উদঘাটনের পর বিস্তারিত বলা যাবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০