শিরোনাম

চতুর্থবারের মতো চট্টগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ বিদ্যুৎসাহী সমাজকর্মী নির্বাচিত হলেন মাহবুব আলম

| বুধবার, ০৭ নভেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 127 বার

চতুর্থবারের মতো চট্টগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ বিদ্যুৎসাহী সমাজকর্মী নির্বাচিত হলেন মাহবুব আলম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কৃতি সন্তান, সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের চিনাইর গ্রামের বাসিন্দা, এম.এ.এইচ মাহবুব আলম চতুর্থবারের মতো চট্টগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ বিদ্যুৎসাহী সমাজকর্মী নির্বাচিত হয়েছেন। ০৫ নভেম্বর চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে। প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে তিনি এই সম্মানে ভূষিত হন। তিনি চিনাইর গ্রামের মরহুম ডাঃ আব্দুল হাইয়ের ছেলে।

এম.এ.এইচ মাহবুব আলম বাংলাদেশ কো-অপারেটিভ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের পরিচালক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর বিআরডিবির সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান। এছাড়া তিনি চিনাইর দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি, চিনাইর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব অনার্স কলেজ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইন কলেজ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর ডিগ্রি কলেজ, অঙ্কুর অন্বেষা বিদ্যাপীঠ (স্কুল এন্ড কলেজ), ব্রাহ্মণবাড়িয়া ইউনাইটেড কলেজ, চাপুইর আলিম মাদ্রাসা, চিলোকুট উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য। চিলোকুট সিরাজুল ইসলাম একাডেমির পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি ব্রাহ্মণবাড়িয়া ইউনিটের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য। এছাড়াও তিনি চিনাইর মদিনাতুল উলুম হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার সাধারণ সম্পাদক।


এম.এ.এইচ মাহবুব আলম প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন। প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে তার লেখা ২৮টি প্রবন্ধ স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত হয়েছে। বাংলাদেশ বেতারে ১২টি এবং বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে তার স্বাক্ষাতকার ভিত্তিক ৫টি প্রবন্ধ প্রচারিত হয়। এম.এ. এইচ মাহবুব আলম ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, বিজয়নগর ও আশুগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিজ উদ্যোগে প্রায় ৪ হাজার বৃক্ষরোপন, দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্কুল ড্রেস, শিক্ষার উপকরণ ও খেলাধুলার সামগ্রী বিতরণ করেছেন। তার সহযোগিতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর ও বিজয়নগর উপজেলায় বেশ কয়েকটি বিদ্যালয়ে সীমানা প্রাচীর নির্মিত হয়।

বিদ্যালয়ে শতভাগ উপস্থিতি ও ঝরেপড়া রোধে তিনি বিজয়নগর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বিভিন্ন স্কুলে ২৬৪টি মা ও অভিভাবক সমাবেশে যোগদান করেন। তিনি ২০১২ সালে ভারত সরকারের আমন্ত্রণে ভারতের নয়াদিল্লীতে ১৬তম ইন্ডিয়ান কো-অপারেটিভ কনফারেন্সে যোগদান করেন। মাহবুব আলম দরিদ্র জনগোষ্ঠীর অর্থনৈতিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করছেন। তার ঐকান্তিক চেষ্টায় আশুগঞ্জ উপজেলার চাতাল শিশুদের শিক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। তিনি বাল্য বিয়ে রোধে কাজ করে আসছেন এবং বেশ কয়েকটি বাল্যবিয়ে রোধ করেন।

তিনি ২০০০সাল থেকে ২০০৩ সাল এবং ২০০৯ সাল থেকে ২০১৮ সালে আগষ্ট মাস পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা বিআরডিবির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০১১ এবং ২০১২ সালে চট্টগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ সমবায়ী ও ২০১৬ সালে চট্টগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ পল্লী উন্নয়ন পদক “ব্যক্তি পর্যায়ে” লাভ করেন। উল্লেখ্য এম.এ.এইচ মাহবুব আলম ইতিপূর্বে পরপর ৩ বার ”ট্টগ্রাম বিভাগে শ্রেষ্ঠ বিদ্যুৎসাহী সমাজকর্মী নির্বাচিত হন। আগামী দিনের পথচলায় তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগীতা প্রত্যাশা করেছেন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১