শিরোনাম

গ্যাস ডুবে থাকা শহরে গ্যাস সংকট

প্রতিনিধি | সোমবার, ১১ জানুয়ারি ২০১৬ | পড়া হয়েছে 368 বার

গ্যাস ডুবে থাকা শহরে গ্যাস সংকট

সংযোগ ও চুলা আছে, নেই শুধু গ্যাস। এ দৃশ্য গ্যাসের শহর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার। ভোরে চলে যায় গ্যাস। আসে বিকেলে। কোনো কোনোদিন রাতেও আসে না। ফলে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে সাধারণ মানুষ।

গ্যাসে ডুবে থাকা এ শহরে গ্যাস সঙ্কট কেন? গ্যাস বিতরণকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা জানান, সংকট গ্যাসের নয়, সমস্যা পাইপের। চিকন পাইপে গ্যাস টানা হয়েছে। সময় পরিক্রমায় গ্রাহক বেড়েছে কয়েকগুণ। চিকন পাইপ আর মোটা হয়নি। তাই এ সংকট।


প্রায় চার মাস আগে অর্ধশত গ্রাহক বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড কর্তৃপক্ষ বরাবর গ্যাস সংকট নিরসন করার দাবিতে আবেদন করে। আবেদনে বলা হয়, তাদের এলাকায় দিনের বেলায় নিয়মিত সাত-আট ঘণ্টা একেবারেই গ্যাস থাকে না। অথচ এ শহরে ২২টি গ্যাস কূপ রয়েছে। এখানকার গ্যাস উত্তরবঙ্গ যাচ্ছে। কিন্তু গ্যাসের শহরের মানুষগুলোই গ্যাস পাচ্ছে না।

দাতিয়ারার বাসিন্দা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান নবজাগরণীর নির্বাহী পরিচালক তহুরা বেগম ব্রাহ্মণবাড়িয়ানিউজ২৪ডটকমকে বলেন, “গ্যাস না থাকার কারণে আমাদের খাওয়া-দাওয়া প্রায় বন্ধ। সকালে রান্নাবান্না হয় না বলে শিক্ষার্থী-চাকুরীজীবিদের খালিপেটেই ঘর থেকে বের হতে হচ্ছে। দুপুরের খাবার খেতে হচ্ছে রাতে।”
রান্নার সব আয়োজন সম্পন্ন করে আমাদের বসে থাকতে হয় ঘণ্টার পর ঘণ্টা। রাতে গ্যাস আসলেও চুলা জ্বলে মিটমিট করে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিদিন গড়ে ৮২৬ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উৎপাদন হয়। বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানি লিমিটেডের অধীন ৩৮টি কূপ থেকে এ গ্যাস উত্তোলিত হয়। যা দেশে উৎপাদিত গ্যাসের শতকরা ৩৪ ভাগ। কিন্তু এ জেলারই সব জায়গায় গ্যাস নেই।

বাখরাবাদ গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড সূত্রে জানা গেছে, এলাকার প্রায় ২০ হাজার গ্রাহক গ্যাস সুবিধা পাচ্ছে। এ শহরের চারদিকেই গ্যাস কূপের ছড়াছড়ি। গ্যাসে ডুবে থাকা এ শহরে গ্যাসের অভাবে চুলা না জ্বলা স্বাভাবিকভাবেই ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে ভুক্তভোগীদের মধ্যে।

দক্ষিণ পৈরতলার ইমতিয়াজ বাবু ব্রাহ্মণবাড়িয়ানিউজ২৪ডটকমকে বলেন “আমরার গ্যাস যায় সারাদেশে। আর আমরাই গ্যাস ভোগ করতে পারি না। কত বড় দুর্ভাগ্য আমরার।

তিনি আরো বলেন, “গ্যাসের সমস্যা নিরসনে এলাকাবাসী দলবেঁধে অফিসে গিয়ে দরখাস্ত জমা দেয়। কর্মকর্তাদের সাথে দেখাও করে। কিন্তু সমস্যার সুরাহা হচ্ছে না।

বাখরাবাদ গ্যাস ডিষ্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের ব্রাহ্মণবাড়িয়া অঞ্চলের উপ-মহাব্যবস্থাপক মাহবুবুর রহমান নিউজ ব্রাহ্মণবাড়িয়ানিউজ২৪ডটকমকে বলেন, “এটি গ্যাস সংকটের ব্যাপার নয়। ঐ এলাকার লাইনে অনেক সমস্যা আছে। প্রথমে এক ইঞ্চি লাইন দিয়ে গ্যাস টানা হয়। পরে ফুটা করে আবার দুই ইঞ্চি করা হয়। এরপর থ্রি-ফোর পাইপ দিয়ে গ্যাস নেয়া হয়।

তিনি আরো বলেন, “মোট কথা, ছোট লাইন থেকে অনেক সংযোগ নেয়া হয়েছে। আগে গ্রাহক ছিল ৩০-৩৫ জন। আর এখন কয়েকশো। অনেক বড় বড় বিল্ডিং হয়েছে। কিন্তু লাইন রয়েছে আগেরটাই। এ সমস্যা নিরসন করতে হলে পুরো লাইন ওঠাতে হবে। নতুন করে লাইন বসাতে অনেক খরচের ব্যাপার। এছাড়া অনেক সময়ও লাগবে

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১