শিরোনাম

গ্যাস অপচয় রোধ করতে হবে-পৌরমেয়র নায়ার কবীর

প্রতিনিধি: | বুধবার, ১০ আগস্ট ২০১৬ | পড়া হয়েছে 665 বার

গ্যাস অপচয় রোধ করতে হবে-পৌরমেয়র নায়ার কবীর

গ্যাস আমাদের প্রাকৃতিক সম্পদ এর অপচয় রোধ সহ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর সভার মেয়র মিসেস নায়ার কবীর বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুগান্তকারী পরিকল্পনায় বিদেশী মালিকানাধীন শেল ওয়েল কোম্পানী থেকে ৫ টি গ্যাস ফিল্ড ক্রয় করে রাস্ট্রীয় মালিকানাধীন করেছেন। যুদ্ধবিধ্বস্ত সময়ে এ পদক্ষেপরে ফলে দেশের মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে এবং শিল্পায়ন বেড়েছে। যার সুফল এখন দেশবাসী ভোগ করছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ
হাসিনার বিভিন্ন উদ্যোগে গ্যাস সেক্টর এখন সমৃদ্ধ, দেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সম্মিলিত ভাবে গ্যাস সেক্টরের যে ঐতিহ্য আছে এর বিকাশ ঘটাতে হবে, দেশের সম্পদ এবং দেশকে ভালবেসে সোনার বাংলা গড়তে হবে। সকলের স্বার্থেই গ্যাসের সাশ্রয় করতে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান।
বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস লিমিটিড বিরাসাস্থ প্রধান কার্যালয়ের মিলনায়তনে বিজিএফ সিএল এর উদ্যোগে জাতীয় জ্বালানী নিরাপত্তা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ আহবান জানান।

বিজিএফসিএল- এর মহাব্যবস্থাপক (টেকনিক্যাল সার্ভিস) প্রকৌশলী মোঃ তৌফিকুর রহমান কপুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মোঃ বশিরুল হক ভ’ইয়া, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার প্রেস ক্লাবের সভাপতি খ. আ. ম রশিদুল ইসলাম। কোম্পানী সচিব মতিউর রহমানের পরিচালনায় ব্যক্তব্য রাখেন মহাব্যবস্থাপক আমির ফয়সল,এমপ্লয়ীজ ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান সাঈদ,অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আলী মোর্তজা প্রমুখ।


উল্লেখ্য, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শাহাদাৎ বরণের মাত্র এক সপ্তাহ পূর্বে ১৯৭৫ সালের ৯ আগস্ট এদেশের বিদেশি মালিকানাধীন শেল ওয়েল কোম্পানির ৫টি গ্যাস ফিল্ড নামমাত্র তথা ৪.৫ মিলিয়ন পাউন্ড ষ্টালিং (১৭.৮৬ কোটি টাকা) মূল্যে ক্রয় করে রাষ্ট্রীয় মালিকানাভুক্ত করেন। জাতির জনকের এ যুগান্তকারী দুরদর্শী সিদ্ধান্তের ফলে আজ অবধি আমাদের অর্থনৈতিক বিকাশে ও জ্বালানি নিরাপত্তার ক্ষেত্রে গ্যাস ক্ষেত্রগুলো অসামান্য ভূমিকা রেখে চলেছে। জাতির জনকের গৃহীত এ পদক্ষেপকে স্মরণ করে তার অবদানের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতাস্বরূপ বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধামন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রথমারের মত ২০১০ সালে ৯ আগস্টকে ‘জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করে।

জাতির জনকের ক্রয়কৃত গ্যাস ফিল্ডসসমূহের মধ্যে তিতাস, হবিগঞ্জ ও বাখরাবাদ ফিল্ড পরিচালনার দায়িত্ব বিজিএফসিএল পায় এবং তদানীন্তন শেল ওয়েল কোম্পানীর নাম পরিবর্তন করে বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস্ কোম্পানী লিমিটেড (বিজিএফসিএল) করা হয়। পরবর্তী পর্যায়ে আরো ০৩টি গ্যাস ফিল্ড যথাঃ নরসিংদী, মেঘনা ও কামতা ফিল্ডের পরিচালনা এ কোম্পানির অধীনে ন্যস্ত করা হয়। বিজিএফসিএল প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন ও এর সহজাত কনডেনসেট প্রক্রিয়াজাতকরণের মাধ্যমে জ্বালানি নিরাপত্তার ক্ষেত্রে গুরত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। বর্তমানে কোম্পানি ৩৮টি কূপ হতে দেশের মোট গ্যাস উৎপাদনের প্রায় ৩০% উৎপাদন করছে।

বাংলাদেশের জ্বালানি তথা প্রাকৃতিক গ্যাসে মজুদ অফুরন্ত নয়। জ্বালানির বহুমুখীকরণ, উৎপাদন বৃদ্ধি, সর্বোৎকৃষ্ট ব্যবহার ও এর সংরক্ষণ নিশ্চিত করা না গেলে অদূর ভবিষ্যতে জ্বালানি চাহিদার ও সরহরাবের ব্যবধান বৃদ্ধি পেতে থাকবে। জনসচেতনতার সৃষ্টির মাধ্যমে এ সকল লক্ষ্য অর্জনে এ দিবসটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০