শিরোনাম

কাজী আনোয়রের হোসেনের মৃত্যুতে খালেদা জিয়ার শোক

নিউজ ডেস্ক | শনিবার, ০৪ মার্চ ২০১৭ | পড়া হয়েছে 343 বার

কাজী আনোয়রের হোসেনের মৃত্যুতে খালেদা জিয়ার শোক

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নবীনগরের সাবেক সংসদ সদস্য কাজী আনোয়ার হোসেন গত শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর এ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর। কাজী আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। শুক্রবার এক বানীতে তিনি এ শোক প্রকাশ করেন।

বেগম খালেদা জিয়া বলেন, মরহুম কাজী আনোয়ার হোসেন নিজ এলাকায় একজন জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ হিসেবে অত্যন্ত সুপরিচিত ছিলেন। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নীতি ও আদর্শের বলিষ্ঠ অনুসারী মরহুম কাজী আনোয়ার হোসেন এলাকার বিএনপি নেতাকর্মী ও জনগণের মধ্যে ছিলেন অত্যন্ত সমাদৃত। জনপ্রতিনিধি হিসেবে জনকল্যানমূলক কাজে তিনি যে অবদান রেখেছেন সেকারণে এলাকাবাসী তাঁকে বারবার সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করেছে। বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী দর্শণই ছিল তাঁর রাজনীতি ও কর্মকান্ডের মূল প্রেরণা। তিনি ছিলেন অত্যন্ত উদার, সজ্জন ও বিনয়ী স্বভাবের একজন মানুষ। বিএনপিকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করতে মরহুম আনোয়ার হোসেন তাঁর রাজনৈতিক জীবনে নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করে গেছেন। মানুষের প্রতি গভীর ভালবাসাবোধ ও জনকল্যানের মহান ব্রত নিয়ে রাজনীতি করতেন বলেই তিনি এলাকাবাসীর নিকট ছিলেন অত্যন্ত আপনজন।


তিনি বলেন, বহুদলীয় গণতান্ত্রিক চেতনাকে দৃঢ়ভাবে বুকে ধারণ করে মানুষের বাক-ব্যক্তি ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার স্বপক্ষে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বিএনপি’র প্রতিটি কর্মসূচিতে তিনি সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছিলেন। দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্র রক্ষার অঙ্গীকারে শহীদ জিয়া প্রবর্তিত ধারাকে অক্ষুন্ন রাখতে তিনি ছিলেন অবিচল, এক্ষেত্রে তাঁর অবদান বিএনপি নেতাকর্মীদের মনে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। দেশের এই দূর্দিনে তাঁর মতো একজন অভিজ্ঞ ও আদর্শনিষ্ঠ রাজনীতিবিদের পৃথিবী থেকে চিরবিদায়ে আমি গভীরভাবে ব্যথিত হয়েছি।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, মরহুম কাজী আনোয়ার হোসেন এর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোকার্ত পরিবারবর্গ, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

অপর এক শোকবার্তায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য, সাবেক সংসদ সদস্য ও ব্রাহ্মণাড়ীয় জেলার কৃতি সন্তান কাজী আনোয়ার হোসেন এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী দর্শণে বিশ্বাসী, সৎ, কর্তব্যনিষ্ঠ ও নিবেদিতপ্রাণ রাজনীতিবিদ মরহুম কাজী আনোয়ার হোসেন তাঁর বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ে যেভাবে নিবেদিত থেকেছেন সেজন্য দেশবাসী তাঁকে চিরদিন শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে। তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় যেভাবে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে তা অতুলনীয়। মির্জা আলমগীর বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে প্রত্যেকটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে তাঁর বলিষ্ঠ অংশগ্রহণ নি:সন্দেহে প্রশংসার দাবিদার। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শোকবার্তায় মরহুম কাজী আনোয়ার হোসেন এর রুহের মাগফিরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যবর্গ, আত্মীয়¯^জন এবং শুভাকাক্সখীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

গুলশানে কাজী আনোয়ার হোসেনের জানাযা অনুষ্ঠিতঃ
শুক্রবার বাদ আসর গুলশান সোসাইটি জামে মসজিদে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নবীনগরের সাবেক সংসদ সদস্য কাজী আনোয়ার হোসেনের জানাযা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, হারুন-অর রশিদ, মশিউর রহমান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মনিরুল ইসলাম চৌধুরী, উকিল আব্দুস সাত্তার, মেজর ( অব.) কামরুল ইসলাম, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কামরুজ্জামান রতন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আউয়াল খান, উপকোষাধক্ষমাহমুদুল হাসান বাবু, নির্বাহী কমিটির সদস্য তকদির হোসেন জসিম, রফিক শিকদার, সালাহ উদ্দিন ভ‚ইয়া শিশির, বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান প্রমুখ। মরহুম আনোয়ার হোসেনের জানাযা শেষে তার মরদেহ গুলশানে তার বাসায় রাখা হয়েছে। আজ সকালে নিজ গ্রাম ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নবীনগরে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে দুই দফা জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে আনোয়ার হোসেনের মরদেহ দাফন করা হবে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০