শিরোনাম

দু’পক্ষের ঝগড়া থামাতে গিয়ে

কসবায় লাঠির আঘাতে গৃহবধূ নিহত

কসবা প্রতিনিধি | মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ | পড়া হয়েছে 79 বার

কসবায় লাঠির আঘাতে গৃহবধূ নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দু’পক্ষের ঝগড়া থামাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে নারগিস আক্তার-(৩০) নামে দুই সন্তানের জননী এক গৃহবধূ নিহত হয়েছে।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর ২০২০) বিকালে উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের সাতগ্রাম এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
নিহত নারগিস আক্তার ওই গ্রামের ইজিবাইক চালক স্বপন মিয়ার স্ত্রী ও উপজেলার শিকারপুর গ্রামের ছিবিল মিয়ার মেয়ে।
নিহতের পরিবার ও পুলিশ জানায়, সোমবার বিকেলে সাতগাও গ্রামের রাজু মিয়ার সাথে মোবাইল ফোন নিয়ে চাচা নুরু মিয়ার কথা-কাটাকাটির ও এক পর্যায়ে ঝগড়া হয়। এসময় পাশের বাড়ির গৃহবধূ নারগিস আক্তার তাদের ঝগড়া থামাতে গেলে রাজু মিয়ার হাতে থাকা লাঠি দিয়ে তার মাথায় আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই সে লুটিয়ে পরে।


স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে আখাউড়া উপজেলার তন্তর বাসষ্ট্যান্ডে অবস্থিত একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে। পরে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথে নারগিস মারা যায়।
খবর পেয়ে পুলিশ সন্ধ্যায় নারগিসের বাড়িতে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

এ ঘটনায় গত সোমবার রাতে নিহত নারগিস আক্তারের মা সায়েরা বেগম বাদী হয়ে ৩জনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাতনামা আরো ৫-৬জনকে আসামী করে কসবা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১