শিরোনাম

কসবায় পদাবিকের বিভাগীয় অর্থ আত্মসাৎ মামলার সরেজমিনে তদন্ত চলছে : অভিযুক্ত শাহীন জেল খেটে জামিনে

কসবা প্রতিনিধি : | শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | পড়া হয়েছে 210 বার

কসবায় পদাবিকের বিভাগীয় অর্থ আত্মসাৎ মামলার সরেজমিনে তদন্ত চলছে : অভিযুক্ত শাহীন জেল খেটে জামিনে

জেলার কসবায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের আওতায় পল্লী দারিদ্র বিমোচন কর্মসূচী (পদাবিক) এর হিসাব রক্ষক (সাময়িক বরখাস্ত) মোঃ রুহুল আমিন শাহীন এর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত ১ কোটি ৮ লাখ ৫৫ হাজার ৮শ ৩৬ টাকা অর্থ আত্বসাতের বিভাগীয় মামলার সরেজমিনে তদন্তের জন্য বিআরডিবির মহাপরিচালক মহোদয়ের নির্দেশক্রমে আত্মসাতের অভিযোগ সমূহ সরেজমিনে তদন্ত করছেন বিআরডিবি কুমিল্লার উপপরিচালক শঙ্কর কুমার পাল। তিনি বিআরডিবি কসবা কার্যালয়ে এসে প্রকল্পের প্রয়োজনীয় কাগজপত্রাদি তদন্ত করছেন এবং প্রাথমিক দলের সদস্যদের সাথে মতবিনিময় সভা করেন। তদন্ত কার্যক্রমে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করছেন উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা রমেন কুমার সাহা, সহকারী পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা (সার্বিক) মোঃ সেলিম, সহকারী পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা (পদাবিক) মোঃ খোরশেদ আলম, জুনিয়র অফিসার (হিসাব) মো: রাসেল সহ প্রকল্পের ভারপ্রাপ্ত হিসাব রক্ষক ও মাঠ সংগঠকগণ। এদিকে বিআরডিবির উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মোতাবেক উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা রমেন কুমার সাহা বাদী হয়ে পদাবিকের হিসাব রক্ষক (সাময়িক বরখাস্ত) মোঃ রুহুল আমিন শাহীনের বিরুদ্ধে কসবা থানায় একটি অর্থ আত্মসাত মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় কুমিল্লার দেখাশুনা করছেন।

মামলায় অভিযুক্ত মোঃ রুহুল আমিন শাহীন প্রায় ১ মাস জেল খেটে বর্তমানে জামিনে রয়েছেন। অপরদিকে আত্মসাত মামলাটি তদন্ত করার জন্য দুর্নীতি দমন কমিশন, সমন্বিত জেলা কার্যালয় কুমিল্লার সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ নূরুল হুদা উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ে ৫ দিন ব্যাপী তদন্ত করার জন্য গত ৭ জানুয়ারি কসবা আসেন।ও ই দিন সকালে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেন। বিকেলে অজ্ঞাত কারণে মোবাইলের একটি ফোনে তদন্ত কার্যক্রম বন্ধ করে দেন। পরবর্র্তীতে এ বিষয়ে কোন কিছু জানা যায়নি।


তদন্ত কর্মকর্তা বিআরডিবি কুমিল্লার স্বনামধন্য উপপরিচালক শঙ্কর কুমার পাল কসবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসিনা ইসলাম এর সাথে সাক্ষাৎ করেন। তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, প্রকল্পটি শুরু থেকে বার্ষিক অডিট না থাকায় এবং সুষ্ঠু তদারকির অভাবে এহেন অর্থ আত্মসাতের ঘটনাটি ঘটেছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১