শিরোনাম

কসবায় অপহরনের দু’দিন পর শিশু খাদিজার লাশ উদ্ধার ॥ গ্রেপ্তার-৪

প্রতিনিধি | মঙ্গলবার, ০৮ মার্চ ২০১৬ | পড়া হয়েছে 1459 বার

কসবায় অপহরনের দু’দিন পর শিশু খাদিজার লাশ উদ্ধার ॥ গ্রেপ্তার-৪

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় অপহরনের দুইদিন পর খাদিজা মনি-(৭) বছরের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত সোমবার সন্ধ্যায় কসবা পৌর সদরের ইমামপাড়ার বাবরু মিয়ার নির্মাণাধীন ভবনের ৫তলার একটি রুম থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নিহত খাদিজা মনি সৌদি প্রবাসী আল আমিন মিয়ার কন্যা।
নিহতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার সকালে কসবা সীমান্ত কমপ্লেক্সের বাসা থেকে স্থানীয় একটি মক্তবে যাওয়ার পথে অপহৃত হয় শিশু খাদিজা মনি। সকাল ৮টার সময় মাসুদ মিয়া নামক এক যুবক খাদিজার মা রুনা আক্তারের মোবাইল ফোনে বলে তার সন্তান মাদ্রাসায় গেছে কিনা খোঁজ নিতে। মোবাইল ফোনে কথা বলার পর রুনা আক্তার মাদ্রাসায় গিয়ে দেখেন খাদিজা মাদ্রাসায় যায়নি। এ সময় খাদিজার সহপাঠী মায়মুনা  রুনা বেগমকে জানায়, মাসুদ মিয়া নামে এক যুবক খাদিজাকে চিপস কিনে দেয়ার কথা বলে নিয়ে। ওইদিন বিকেলে একটি অপরিচিত মোবাইল ফোন নাম্বার থেকে ফোন দিয়ে রুনা আক্তারের কাছে দেড় লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করা হয়। অন্যথায় খাদিজা মনিকে ফেরত পাবে না জানানো হয়।
এ ঘটনার বিকেলে খাদিজা মনির মা রুনা আক্তার বাদী হয়ে কসবা থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।
পুলিশ অপহরণকারীর কললিস্ট ধরে ওইদিনই উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের লতুয়ামুড়া গ্রামের সমরাজ মিয়ার ছেলে মাসুদ মিয়া-(২০) কে-গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত মাসুদকে পুলিশ ৫দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী সিলেট জেলার জকিগঞ্জ মুন্সিবাজার গ্রামের আবদুস শহীদের ছেলে তামিম মিয়া-(২৫), কসবা উপজেলার গোপিনাথপুর গ্রামের হোসেন সরকারের ছেলে কিবরিয়া মিয়া-(২২) ও একই গ্রামের ইব্রাহিম মিয়া-(২৭)-কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গত সোমবার রাতে খাদিজার গলা কাটা লাশ উদ্ধার করা হয়।
জানা গেছে, সৌদি প্রবাসী আল আমিন মিয়ার কসবা পৌর সদরের ভাড়াকৃত বাসায় প্রায়ই মাসুদ মিয়া অপরিচিত মেয়ে নিয়ে আসা যাওয়া করতো। তার এসব অনৈতিক কাজে খাদিজার মা রুনা আক্তার বাঁধা দিলে ক্ষিপ্ত হয়ে  মাসুদ প্রতিশোধ নেয়ার হুমকি দেয়।
গ্রেপ্তারকৃত মাসুদ পুলিশকে জানায় এ ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই খাদিজাকে অপহরণ করে হত্যা করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহিউদ্দিন জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পুলিশ অপহৃত খাদিজা মনির লাশ উদ্ধার  করেছে অপহরণের সাথে জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০