শিরোনাম

সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মমতাজউদ্দিন আহমেদ

কলমের মাধ্যমে দেশটাকে রক্ষা করতে হবে

| শুক্রবার, ০৪ নভেম্বর ২০১৬ | পড়া হয়েছে 471 বার

কলমের মাধ্যমে দেশটাকে রক্ষা করতে হবে

বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মমতাজউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, কলমের মাধ্যমে দেশটাকে রক্ষা করতে হবে। তিনি গত শুক্রবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাংবাদিকবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। প্রেসক্লাব সভাপতি খ. আ. ম রশিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিচারপতি মমতাজউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, আমি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সন্তান। কুমিল্লা জেলায় জন্ম হলেও ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে আমি নিজের বাড়ি মনে করি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিক্ষিত লোকের এলাকা। তাই পাকিস্তান আমল থেকেই সরকারী চাকুরীজীবিরা ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে কর্মস্থল হিসেবে বেশি পছন্দ করে। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা সমাজের দর্পণ। অনুসন্ধান করে সত্য সংবাদ পরিবেশন করতে হবে। তিনি বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জেলা কিন্তু একটি চক্র সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে নষ্ট করার চেষ্টা করছে। যাতে আমাদের লজ্জা হয়। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা সত্য নিষ্ঠ ও ন্যায় নিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করবেন। সত্যের পথে থেকে সংবাদ পরিবেশন করবেন। তিনি বলেন, ব্যাপক নিরাপত্তার পরেও নাসিরনগরে আগুন লাগানোর ঘটনা চ্যালেঞ্জ করারই সামিল। তিনি বলেন, এই দেশ আপনাদের। দেশের সম্মান রক্ষার দায়িত্ব আপনাদেরই।
মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেন, নাসিরনগরে যে মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে তা দুঃখজনক। সাংবাদিকরা সঠিক তথ্য উপস্থাপন করে এর প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করতে হবে। তিনি বলেন, কিছু কিছু পত্রিকায় দু’ব্যক্তির বিরোধের কারণে নাসিরনগরে এই ঘটনা ঘটেছে বলে যে সংবাদ পরিবেশিত হয়েছে এতে প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার চেষ্টা করা হয়েছে। তিনি বলেন, নাসিরনগরের ঘটনায় একটি স্বার্থান্বেষী মহলের হাত রয়েছে। বিএনপি জামাত ওই সাম্প্রদায়িক ঘটনায় উস্কানি দিয়ে মাঠে নামার চেষ্টা করছে। তিনি বলেন, নাসিরনগরের ঘটনায় জামাত- বিএনপি জড়িত। সাম্প্রদায়িক চিন্তা চেতনার মানুষের আওয়ামী লীগে ঠাই নেই। এ ঘটনায় প্রশাসনে উদাসীনতা ও শীতলতা ছিল। সাংবাদিকরা সমাজের চোখ। মহান পেশার সাথে জড়িত। তাদের দায়িত্ব অনেক বড়। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনারা সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়াই করবেন। গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করবেন। তিনি বলেন, বিএনপি যুদ্ধাপরাধীদের সমর্থন করে, আগুন সন্ত্রাস করে। তাই বিএনপিকে আমরা গণতন্ত্রের শক্তি মনে করি না। জামাত- বিএনপিকে নিয়ন্ত্রিত করে। বিএনপি স্বৈরতন্ত্র শক্তি। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, সত্যকে মানুষের সামনে তুলে ধরতে হবে। সত্যের সন্ধানে লড়াই করতে হবে।
মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি নায়ার কবীর, প্রেস কাউন্সিলের সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, বিশিষ্ট সাংবাদিক আকরাম উদ্দিন ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার। মত বিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী ও পরিচালনা করেন সিনিয়র সহ সভাপতি আল আমিন শাহীন। কর্মশালার আগে প্রধান অতিথি ও অন্যান্য অতিথিদেরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।
আলোচনা সভা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০