শিরোনাম

একাধিক মামলার আসামী তনয় বিল্লাহ গ্রেফতার

| সোমবার, ২৫ জুন ২০১৮ | পড়া হয়েছে 406 বার

একাধিক মামলার আসামী তনয় বিল্লাহ গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তনয় বিল্লাহ (২২) নামে ছাত্রলীগের এক কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার (২৪.০৬.২০১৮) বেলা তিনটার দিকে জেলা শহরের পৌর আধুনিক সুপার মার্কেট থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন জানান, তনয় বিল্লাহ নিজেকের ছাত্রলীগের কর্মী বলে পরিচয় দিলেও ছাত্রলীগের কোনো কমিটিতে তার কোনো পদ নেই। তার বিরুদ্ধে সদর থানায় ও রেলওয়ে থানায় মামলা রয়েছে।


সদর থানা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ মে জেলা শহরের পৌর কমিউনিটি সেন্টারে জেলা ছাত্রলীগের ইফতার মাহফিলে চেয়ারে বসা নিয়ে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মিকাইল হোসেনের সঙ্গে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক ও বিজয়নগর উপজেলার চর ইসলামপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য তফসিরুল ইসলামের বাকবিতন্ডা হয়। এ ঘটনায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ইফতার মাহফিলের পর তফসিরকে মারধর করে। তাকে দেখতে হাসপাতালে যাওয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক মহসিন মোল্লাকেও পৌর ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা মারধর করে। এ ঘটনায় পরদিন তফসিরুল ইসলাম ও মহসিন মোল্লা সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। দু’জনের মামলায় তনয় বিল্লাহকে আসামী করা হয়। গত ৩০ মে রাতে পৌণে নয়টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-ঢাকা রেলপথে চলাচলকারী তিতাস কমিউটার ট্রেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন পৌছলে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা হামলা চালায়। হামলায় তিতাস ট্রেনের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পরিচালক মীর মো. শাহীনসহ চারজন আহত হয়। এ ঘটনায় পরদিন মীর মো. শাহীন বাদী হয়ে আখাউড়া রেলওয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায়ও ছাত্রলীগ কর্মী তনয় বিল্লাহকে আসামী করা হয়। গত ২০ জুন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালের সামনে তনয় বিল্লাহর নেতৃত্বে ১০/১২জনের একটি দল জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সামসুজ আমান চৌধুরীর উপর হামলা চালায়। এ সময় তারা সামসুজ আমানের কাছ থেকে নগদ টাকা ও মুঠোফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় তনয় বিল্লাহকে প্রধান আসামী করে সামসুজ আমান চৌধুরী সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সামসুজ আমান চৌধুরী বলেন, তনয় বিল্লাহ গত ১৪ ও ২০ জুন আমার উপর হামলা চালিয়েছে। ছাত্রলীগের একটি পক্ষের কারণে পুলিশও তাকে গ্রেফতার করতে চায় না। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। রবিবার দুপুরে আটককৃত যুবক তনয় বিল্লাহ বলে নিশ্চিত করেন তিনি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নবীর হোসেন বলেন, তনয় বিল্লাহ নামে ছাত্রলীগের এক কর্মীর বিরুদ্ধে সদর থানায় দু’টি মামলা, একটি সাধারণ ডায়েরী এবং আখাউড়া রেলওয়ে থানায় আরেকটি মামলা রয়েছে। পুলিশ বিষয়গুলো খতিয়ে দেখছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১