শিরোনাম

মুজিরীসহ ১৫দফা দাবিতে

আশুগঞ্জে নৌযান শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু

| মঙ্গলবার, ২৩ আগস্ট ২০১৬ | পড়া হয়েছে 517 বার

আশুগঞ্জে নৌযান শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু

সর্বনিম্ন মজুরি ১০হাজার টাকা নির্ধারণ, নৌপথে ডাকাতি-চাদাঁবাজি বন্ধ, নৌযান শ্রমিকদের নিরাপত্তা, নদীর নাব্যতা ফিরিয়ে আনাসহ ১৫ দফা দাবিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে কেন্দ্রীয় নৌযান শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের ডাকে মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি শুরু করেছে শ্রমিকরা।
লঞ্চ, বাল্কহেড, তেলবাহী ট্যাংকার, বালুবাহী নৌকা, লাইটার জাহাজসহ সকল প্রকার নৌযানের শ্রমিকরা একাত্বতা প্রকাশ করে কর্মবিরতি পালন করছে।
এর ফলে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে পন্য নিয়ে আসা প্রায় দু’শতাধিক কার্গো জাহাজ আশুগঞ্জ নৌ-বন্দরে আটকে পড়ে। বন্ধ হয়ে গেছে আশুগঞ্জের সাথে দেশের পূর্বাঞ্চলীয় ৬টি নৌ-রুটের (সিলেট, কিশোরগঞ্জ, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার) নৌ-যোগাযোগ।বন্ধ হয়ে গেছে নদী বন্দরের সকল প্রকার কার্যক্রম। বেকার হয়ে গেছে বন্দরের প্রায় ৫শতাধিক শ্রমিক।
এ ব্যাপারে বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সমন্বয়ক এ.কে. এম হাবিবুল্লাহ বাহার বলেন, জানুয়ারি মাসে নৌযান শ্রমিকেরা ১৫ দফা দাবিতে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক কর্মবিরতি পালন করে। পরে সরকার-নৌযান মালিক-শ্রমিকের যৌথ সভায় সরকারি চাকুরিজীবিদের বেতনের সাথে সঙ্গতি রেখে নৌযান শ্রমিকদের সর্বনিম্ন মজুরি নির্ধারন ও অন্যান্য দাবি পর্যায়ক্রমে মেনে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু সিদ্ধান্ত আজো বাস্তবায়ন হয়নি। তাই শ্রমিকরা কেন্দ্রীয় নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকে ১৫ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছে।
এ ব্যাপারে পূর্বাঞ্চলীয় কার্গো মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মোঃ নাজমুল হোসাইন হামদু বলেন, ধর্মঘটের কারনে ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের উৎপাদিত জরুরি কাচাঁমাল নিয়ে জাহাজ আটকা পড়েছে। জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকলে আমরা আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবো।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০