শিরোনাম

আশুগঞ্জে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো সরকারি পুকুরে অবৈধ ভরাট কাজ

আশুগঞ্জ প্রতিনিধি : | শুক্রবার, ১৫ জুন ২০১৮ | পড়া হয়েছে 192 বার

আশুগঞ্জে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো সরকারি পুকুরে অবৈধ ভরাট কাজ

অবশেষে আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমি বাইন হীরার হস্তক্ষেপে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে আশুগঞ্জ উপজেলার সরকারি দুইটি প্রতিষ্ঠানের মালিকানাধীন পুকুরে অবৈধ ভাবে ভরাটের কাজ। কয়েকটি গণমাধ্যমে এই বিষয়ে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মৌসুমি বাইন হীরা ভরাট কাজ বন্ধ করে দেন। স্থানীয় চরচারতলা ইউ.পি’র সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ূব খানের নেতৃত্বে প্রভাবশালী একটি চক্র স্থানীয় চরচারতলা উত্তরপাড়া কবরস্থান সংলগ্ন পুকুরটিতে মোটা পাইপ দিয়ে বালু ফেলে ভরাট কর ছিল। এই ভরাট কার্যক্রম সম্পন্ন করতে ২৬ সদস্য’র একটি সিন্ডিকেট তৈরী করে প্রভাবশালী ওই চক্রটি। এই চক্রের সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন স্থানীয় শফিক ব্রাদার্সের শফিকুর রহমান, টুক্কু মিয়া, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন ও আবুল হাসেম।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চরচারতলা উত্তরপাড়া কবরস্থান কমিটি তাদের নিজস্ব ডোবা ভরাটের অনুমতি চেয়ে উপজেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করে। এ প্রেক্ষিতে উপজেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোসাম্মৎ শাহিনা আক্তার তার অফিসের সার্ভেয়ার দিয়ে চরচারতলা মৌজার ১৭৫১ দাগের ভূমির ষোলআনা মালিকানা নিরূপণ করে একটি প্রতিবেদন দাখিল করেন। এতে দেখা যায়, পুকুরটিতে ১৫ শতক জায়গার মালিক সরকারের পক্ষে খাদ্য মন্ত্রণালয়, ৩৬ শতক জায়গার মালিক বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রি কর্পোরেশন, উত্তরপাড়া কবরস্থান কমিটি ১০ শতক এবং চরচারতলা ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসা ৩০ শতক জায়গার মালিক।


পুকুর ও কবরস্থানের পশ্চিমাংশে আশুগঞ্জ নদীবন্দরের জন্য আইসিটি টার্মিনাল নির্মিত হবে। এটিকে লক্ষ্য করেই কবরস্থান উন্নয়নের নামে পুকুর ভরাট করে সেখানে মার্কেট করার পরিকল্পনা করে প্রভাবশালী সিন্ডিকেটটি।

এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মৌসুমি বাইন হীরা জানান, জেলা প্রশাসক মহোদয় এর নির্দেশক্রমে সরকারি প্রতিষ্ঠানের জায়গায় অবৈধভাবে পুকুর ভরাট কাজ বন্ধ করা হয়েছে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১