শিরোনাম

আখাউড়ায় মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মতবিনিময় কালে আইনমন্ত্রী

আপনারা যে শুধু ভোট দিবেন তা না ষড়যন্ত্র থেকে পাহারা দিবেন

আখাউড়া প্রতিনিধি : | শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | পড়া হয়েছে 274 বার

আপনারা যে শুধু ভোট দিবেন তা না ষড়যন্ত্র থেকে পাহারা দিবেন

মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে ভোট চেয়েছেন আইনমন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হক। ১৪ ডিসেম্বর শুক্রবার দুপুরে আখাউড়া পৌরসভায় মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মতবিনিময় কালে তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটা সন্ধিক্ষণে পৌঁছেছে। আপনাদের ত্যাগের বিনিময়ে আল রাজাকার আলবদর আল সামস এর হাত থেকে আপনারা যে পতাকা পাকিস্তানিদের হাত থেকে ছিনিয়ে এনেছিলেন বঙ্গবন্ধু যে পতাকা আমাদেরকে দিয়ে গেছেন সে পতাকা উড়িয়েছেন জামায়াত এবং শিবিরের লোকেরা। যারা ৭১’ সালে নৃশংস ভাবে মুক্তিযোদ্ধা বাঙ্গালীদের হত্যা করেছে আজকে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর ২১ বছর রাজত্ব করেছে আপনাদের উপর ছুরি ঘুরিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর কন্যাই প্রথম মানবতা বিরোধী এবং যুদ্ধপরাধীদের বিচার করে মুজাহিদ নিজামী, কামরুজ্জান মীর কাশেম সাকা এদেরকে ফাঁসিতে ঝুলিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, আজকে আপনাদের প্রিয় বাংলাদেশকে শেখ হাসিনা সারাবিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। আমি শেখ হাসিনার নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হয়েছি। আমার মনে হয় না, আপনাদের কাছে আমার জন্য নৌকা মার্কার জন্য শেখ হাসিনার জন্য আপনাদের জন্য ভোট চাইতে হবে। আপনারা যারা মুক্তিযোদ্ধা করেছেন, যারা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান তারা একটা মার্কাতে ভোট দিতে পারবেন। আমার জন্য ভোট চাইতে এসেছি। কসবা আখাউড়া নির্বাচনে আপনারা একজনকে ভোট দিতে পারবেন। সেই মার্কা হচ্ছে নৌকা আর একজন হচ্ছি আমি। তার কারণ আমি আপনাদের সন্তান, পরিবারের একজন, আপনারা যে বাংলাদেশ তৈরি করে দিয়ে গেছেন সেই উন্নয়নে প্রতীকের সাথে আমি কাজ করি। সেই ক্ষেত্রে আজকে দেওয়ার সম্পর্কে নয়, রক্তের সম্পর্কের কারণে, একই সুতার বাঁধার কারণে আপনাদের কাছে আমি ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে ভোটটা ভিক্ষা চাই। আপনারা যে শুধু ভোট দিবেন তা না ষড়যন্ত্র থেকে পাহারা দিবেন। ষড়যন্ত্র থেকে শুধু যে পাহারা দিবেন তা নয়, আপনারা প্রত্যেককে নৌকা মার্কা ভোট দেওয়ার জন্য উদ্বুদ্ধ করবেন।


এ সময় আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন, যুগ্ম আহ্বায়ক আবুল কাসেম, মো. সেলিম ভূঁইয়া, পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবু ছায়েদ মিয়া, জামসেদ শাহ, বাহার মালদার, নৌকমান্ডার ফজলুল হক, জজ মিয়া, মোগড়া ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবদুর রাজ্জাক, দক্ষিণ ইউনিয়ন সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া, জাহার খন্দকার, নারী মুক্তিযোদ্ধা শর্মীলা দেব ও গীতা দেবসহ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার উপস্থিত ছিলেন। এর আগে সকালে খড়মপুর, দূর্গাপুর, টানপাড়া, আজমপুর, কৌড়াতুলি, আমোদাবাদ, রাজাপুর, কল্যাণপুর, আনোয়ারপুরসহ এলাকায় গণসংযোগ করেন মন্ত্রী।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০