শিরোনাম

আজ মহান মে দিবস

স্টাফ রিপোর্টার : | মঙ্গলবার, ০১ মে ২০১৮ | পড়া হয়েছে 490 বার

আজ মহান মে দিবস

আজ মহান মে দিবস। বিশ্বের শ্রমজীবী মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় দিবসটি পালিত হচ্ছে। আজ সরকারি ছুটির দিন। ১৮৮৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটের শ্রমিকরা আট ঘণ্টা কাজের দাবিতে আন্দোলনে নামেন। এতে কয়েকজন শ্রমিককে জীবন দিতে হয়। এরপর থেকে দিনটি ‘মে দিবস’ হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও দিবসটি পালিত হচ্ছে।

এদিকে সমাজ বিকাশের বিভিন্ন পর্যায়ে শোষণের বিরুদ্ধে শ্রমজীবী মানুষ প্রথমে বিচ্ছিন্নভাবে এবং পরে সংঘবদ্ধ সংগ্রাম করে এসেছে। সংগ্রামের মাধ্যমে এক সময় পৃথিবী থেকে দাসপ্রথা বিলুপ্ত হলেও শ্রমিকদের কাজের কোনো ধরাবাঁধা কর্মঘণ্টা ছিল না। উনিশ শতকের গোড়ায় কল-কারখানায় সপ্তাহের ৬ দিন গড়ে প্রায় ১০ থেকে ১২ ঘণ্টার বেশি অমানুষিক পরিশ্রম করতে হতো শ্রমিকদের। বিনিময়ে মিলত সামান্য কিছু মজুরি। অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা ও কোনো সামাজিক নিরাপত্তা ছিল না। এর বিরুদ্ধে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে লড়াই শুরু হলেও তা বিরাট আকার ধারণ করে আমেরিকায়।


১৮৮৬ সালের ১ মে যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় তিন লাখ শ্রমিক রাজপথে নেমে মিছিলে শামিল হন। শিকাগোতে শ্রমিক ধর্মঘট ডাকা হয়। ১৮৮৬ সালের ৪ মে প্রায় ৪০ হাজার শ্রমিক কাজ ফেলে শিকাগো শহরের কেন্দ্রস্থল হে মার্কেটে সমবেত হন। লাগাতার ধর্মঘট, শ্রমিক জমায়েত, মিছিল দেখে আতঙ্কিত শাসক শ্রেণী শ্রমিকদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। এতে ১১ শ্রমিক নিহত হন, আহত হন অনেকে। পরে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে ৬ শ্রমিক নেতাকে ফাঁসি দেয়া হয়।

১৮৯০ সাল থেকে মে দিবসকে শ্রমিক শ্রেণীর ‘আন্তর্জাতিক সংহতি দিবস’ হিসেবে পালন করা হচ্ছে। ‘মে দিবস’ দেশে দেশে শ্রমিক শ্রেণীকে কেবল তাদের অর্থনৈতিক দাবি-দাওয়ার মধ্যেই নয়, শোষণ-পীড়ন থেকে মুক্তির অভিন্ন লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়ার জন্য উন্নততর চেতনায় সমৃদ্ধ করে। আর আজ দেশের সর্বত্র আন্তর্জাতিক মে দিবস পালিত হচ্ছে। শহর, বন্দর, শিল্পাঞ্চল, ছোট-বড় কারখানার গেটে, শ্রমিক সংগঠনগুলোর দফতরে লাল পতাকা উত্তোলন করা হবে, শ্রদ্ধা জানানো হবে সেসব শহীদদের।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১