শিরোনাম

আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচন

প্রতিনিধি | বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫ | পড়া হয়েছে 626 বার

আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচন

 

 


আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি প্রার্থী দু-জনেই জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। আওয়ামী লীগ প্রার্থী তাকজিল খলিফা কাজল বলেন, আমি নই ভোটাররাই আমার জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। তারা বলছে, আমার জয় শতভাগ সিউর। আর বিএনপি প্রার্থী মো. মন্তাজ মিয়া বলেন নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আমি একশো ভাগ পাস করবো। আজ সীমান্তবর্তী এই পৌরসভার ভোট গ্রহণ। বিভিন্ন দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে-পৌরসভার ১১টি কেন্দ্রের সবকটিই ঝুঁকিপূর্ণ। তবে নির্বাচন প্রশাসন ৫টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ বলে চিহ্নিত করেছে। এগুলো হচ্ছে- দুর্গাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রেলওয়ে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, নাছরিন নবী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, তারাগণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও দেবগ্রাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র। নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার আলাউদ্দিন আল মামুন জানান, তারা ৫টি কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। এসব কেন্দ্রে ৮টি অস্ত্রসহ পুলিশ ও আনসারের ২০ সদস্যের একটি দল দায়িত্ব পালন করবে। অন্যান কেন্দ্রে ৭ অস্ত্রসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ২০ সদস্য দায়িত্ব পালন করবে। এ ছাড়া সমগ্র নির্বাচনী এলাকায় ৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। ২/৩টি কেন্দ্রের জন্য একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্বে থাকবেন। নির্বাচনের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় এক প্লাটুন বিজিবি, এক প্লাটুন র্যাব নিয়োজিত থাকবে। এ ছাড়া প্রত্যেক ওয়ার্ডে একটি করে মোবাইল টিম, ৩টি ওয়ার্ডের জন্য একটি করে স্ট্রাইকিং ফোর্স থাকবে। তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তায় নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করার সর্বতো প্রচেষ্টা রয়েছে। এই পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে মোট ৫ জন এবং সাধারণ ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে মোট ৪৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে সাধারণ কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৩৯ জন। পৌরসভার ২৪ হাজার ৯৫০ জন ভোটার আজ তাদের রায় দেবেন। তবে সুষ্ঠু ভোট নিয়ে নানা শঙ্কা রয়েছে ভোটারদের মধ্যে।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০