শিরোনাম

ঘটনার ১৩ দিনেও কেউ গ্রেফতার হয়নি

আখাউড়ায় হামলায় হাত-পা ভাঙ্গা নাসিম ভূঁইয়ার পা কেটে ফেলার উপক্রম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : | বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৬ | পড়া হয়েছে 1856 বার

আখাউড়ায় হামলায় হাত-পা ভাঙ্গা নাসিম ভূঁইয়ার পা কেটে ফেলার উপক্রম

জেলার আখাউড়া উপজেলা সদরের শান্তিনগরে প্রভাবশালীদের হামলায় পিতা, মাতা ও পুত্র আহত হওয়ার ঘটনায় পিতা নাসিম ভূঁইয়ার এখন ডান পা কেটে ফেলার উপক্রম হয়েছে। পুত্র আবু বকর আহত পিতা ও পুত্র রযেছেন ঢাকায় চিকিৎসাধীন। মাতা ফাতেমা বেগম রয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালের বিছানায়। প্রভাবশালীদের ভয়ে ভূক্তভোগী পরিবার রয়েছে বাড়ীছাড়া হয়ে। মামলার কয়েকজন আসামী জামিনে থাকলেও মুল আসামীরা রয়েছে ধরা ছোঁয়ার বাইরে।
মামলার আরজিতে প্রকাশ, আখাউড়া সদরের শান্তিনগর গ্রামের মৃত ফিরোজ ভূঁইয়ার পুত্র নাছিম ভূঁইয়ার সাথে একই গ্রামের ইউসুফ আলীর পূত্র প্রভাবশালী গোলাম আহম্মদের ভূমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে বেশ কিছুদিন যাবৎ হত্যার হুমকি নানা ধরনের হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছিল অসহায় নাছিম ভূঁইয়ার পরিবারের সদস্যদের। এরপর গত ১ নভেম্বর সন্ধ্যার পর স্থানীয় বড় বাজারে চৌমূহনীতে রাস্তার উপর দেশীয় অস্শস্্রসহ উৎপেতে থাকা প্রভাবশালীরা পিতা-পুত্রসহ ৩ জনের উপর হামলা করে তাদের হাত-পা ভেঙ্গে দিয়ে তাদের উপর উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। এসময় তারা নাছিম ভূইয়ার পুত্র আবু বক্করের দোকানের মালামাল ও লুটে করে নেয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে আহতদের প্রথমে আখাউড়া থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তরত ডাক্তার আহতদের দ্রæত ব্রাহ্মণাবাড়িয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার অবস্থার বেগতিক দেখে আহতদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে প্রেরণ করেন। ঘটনার পরদিন ফাতেমা বেগম বাদী হয়ে মামলা আখাউড়া থানায় মামলা দায়ের করলে আখাউড়া থানা পুলিশ মামলাটি রুজু করেন। এরপর থেকে বিবাদীরা মামলা তুলে নিতে বাদীকে মানিষিক নির্যাতন করতে থাকে। অবশেষে ১৩ নভেম্বর মামলার বাদী ফাতেমাকেও তারা রাস্তায় পেয়ে মারধর করে গুরুত্বর আহত করে। তিনিও ব্রাহ্মনবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীর রয়েছেন। এখন তাদের বসত বাড়ীটি পরিবার শূন্য হয়ে পড়েছে। যে কোন সময় বাড়ীর অভ্যন্তরে অগ্নি সংযোগও লুটতরাজের আশংকা করছেন মামলার বাদী ফাতেমা বেগম। এ ব্যাপারে আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন তরফদার বলেন, এ মামলার আসামীরা পলাতক রয়েছে, গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে। মামলার বিবাদী পক্ষও বাদী পক্ষের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছে।


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০