শিরোনাম

আখাউড়ায় মহাসড়কে মাছ ডাকাতির ঘটনায় ৪ ডাকাত গ্রেপ্তার

আখাউড়া প্রতিনিধি | সোমবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | পড়া হয়েছে 399 বার

আখাউড়ায় মহাসড়কে মাছ ডাকাতির ঘটনায় ৪ ডাকাত গ্রেপ্তার

কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় পিকআপ ভর্তি মাছ ডাকাতির ঘটনার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। ডাকাতির ঘটনায় জড়িত ৪ জনকে গ্রেপ্তারের মাধ্যমে এই ঘটনার রহস্য উম্মোচন হয়।

গত রোববার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান।
গ্রেপ্তারকৃত ডাকাতরা হলেন, সদর উপজেলার নাটাই উত্তর ইউনিয়নের বিরাসার গ্রামের মোঃ কাইয়ুম, পৌর এলাকার পুনিয়াউট গ্রামের জুনাইদ বাহার প্রকাশ আকাশ, ফুলবাড়িয়া গ্রামের সালাহ উদ্দিন এবং ঢাকার সাভার উপজেলার কামাল হোসেন।


সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, ময়মনসিংহ জেলার ইশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাছ ব্যবসায়ী মোঃ নজরুল ইসলাম গত ২২ সেপ্টেম্বর রাতে ঈশ্বরগঞ্জ থেকে পিকআপ ভ্যানে করে পাবদা মাছ নিয়ে কুমিল্লা জেলার কোম্পানীগঞ্জ যাচ্ছিলেন।
রাত আনুমানিক সোয়া ২টার দিকে তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর শহরের পুনিয়াউট রেলক্রসিংয়ের কাছে পৌছলে পেছন দিক থেকে আরেকটি পিকআপ ভ্যান মাছ ভর্তি পিকআপটিকে অনুসরণ করতে থাকে।

নজরুল ইসলামের মাছ ভর্তি পিকআপ ভ্যানটি আখাউড়া উপজেলার ধরখার এলাকার তন্তর বাজারের কাছাকাছি পৌছলে পেছনে থাকা পিকআপটি তার পিকআপের সামনে এসে ব্যারিকেড দেয়।
পরে ওই পিকআপ থেকে ৭/৮ জন দুস্কৃতিকারী দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে নজরুল ইসলামের মাছবাহী পিকআপের ড্রাইভার ও হেলপারকে মারধোর করে। এক পর্যায়ে দুষ্কৃতিকারীরা তাদেরকে রশি দিয়ে বেঁধে পিকআপে থাকা ২৬৬ কেজি পাবদা মাছ ও ড্রাইভার ও হেলপারের মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা নিয়ে যায়।
এই ঘটনায় ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম আখাউড়া থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ সরাইল উপজেলার শাহাবাজপুর বাজারে মাছ বিক্রির সময় মোঃ কাইয়ুমকে আটক করে। পরে কাইয়ুমের দেয়া তথ্য মতে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে জুনাইদ বাহার প্রকাশ আকাশ, সালাহ উদ্দিন ও কামাল হোসেনকে গ্রেপ্তার ও ডাকাতির ঘটনায় ব্যবহৃত পিকআপ (ঢাকা মেট্টো-ন-১৮-৭৯৬৯) আটক করে। পরে পুলিশ তাদের কাছ থেকে লুণ্ঠিত মাছ বিক্রি করা ৪৮ হাজার টাকা উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত জুনায়েদ বাহার ও কামাল হোসেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ঘটনার সাথে জড়িত অপর আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলমগীর হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রেজাউল কবিরসহ জেলা পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তাগন।

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০