শিরোনাম

অধ্যক্ষকের করা মামলা,গ্রেফতার-২

| মঙ্গলবার, ০৮ নভেম্বর ২০১৬ | পড়া হয়েছে 414 বার

অধ্যক্ষকের করা মামলা,গ্রেফতার-২

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বাঞ্ছারামপুর উপজেলা ফরদাবাদ গ্রামের ড,রওশন আলম কলেজের অধ্যক্ষকে লাঞ্চিত করেছে অত্র কলেজের ৩ জন শিক্ষক ।এ ব্যাপারে কলেজের অধ্যক্ষ সৈয়দ নুরুল হক বাদী হয়ে প্রভাষক ফেরদৌস,অধ্যাপক মুফতি কামাল উদ্দিন, সহযোগী অধ্যাপক কেএম কায়সারকে আসামী করে বাঞ্ছারামপুর থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ ৭ নভেম্বর মুফতি কামাল উদ্দিন ও কেএম কায়সারকে গ্রেফতার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেল হাজতে প্রেরন করেন ।তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আবু কালাম গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ।অধ্যক্ষ সৈয়দ নুরুল হক জানান, গত ৫ নভেম্বর ড,রওশন আলম কলেজের গভর্নির বডির এক আলোচনা সভা চলাকালীন সময়ে অভিযুক্ত ৩ শিক্ষক সভাকক্ষে প্রবেশ করে সৈয়দ নুরুল হককে পদত্যাগ পত্রে স্বাক্ষর দিতে বলিলে অধ্যক্ষ স্বাক্ষর না দিলে তাদের সাথে কথা কাটাকাটি হয় ।এক পর্যায়ে উল্লেখিত আসামীরা অধ্যক্ষের শার্টের কলারে ধরে কিল,ঘুষি ও ধাক্কা মেরে ফেলে দেয় ।অধ্যক্ষের কাছ থেকে কলেজের রেজুলেশন খাতা নিয়ে সৈয়দ নুরুল হককে বরখাস্ত করে সহকারী অধ্যাপক নিলয় দেবনাথকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগ করা হয় ।এ বিষয়ে অন্য সদস্যরা আপত্তি জানালে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে রেজুলেশন খাতাটি ছিড়ে ফেলা হয় ।অধ্যক্ষকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে বলে মুফতি কামাল উদ্দিনের গ্রুপের লোকজন জানায় ।গভর্নির বডির সদস্যরা বলেন,কলেজ অধ্যক্ষ প্রভাষক আজম খানের বেতন বিল সভাপতির নিকট প্রেরন করলে সভাপতি ড,রওশন আলম বেতন বিল কেটে দেয়।ফলে অধ্যক্ষ ও সভাপতির মধ্যে দুটি গ্রুপ হয়ে যায়,এর জের হিসেবে এ ঘটনা ঘটে ।

বাঞ্ছারামপুর প্রতিনিধি


আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০